ঢাকা, রবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মিথ্যা অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ৯:২৭ : অপরাহ্ণ

মিথ্যা অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ঢাকার পল্টনস্থিত প্রিতম হোটেল (দ্বিতীয় তলা)-য় এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে পিরোপুর জেলার ভান্ডারিয়া উপজেলার সর্বজন শ্রদ্ধেয় সামাজিক ও মানবিক ব্যক্তিত্ব সাবেক ৩নং তেলীখালি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মরহুম আলহাজ্ব মোঃ শাহাদাৎ হোসেন এবং তার পরিবার নিয়ে কতিপয় অসাধু, প্রতারক, প্রবঞ্চক, পরনিন্দাকারী, পর মানসম্মান ও চরিত্রহনকারী পরস্পর একদলভুক্ত হয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় বিশেষ করে ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কিছু মিথ্যা, অসত্য ও বানোয়াট, কুৎসিত, অশ্লীল কাহিনী সৃজনের মাধ্যমে সামাজিক, রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার হীন মানসে অপপ্রচার চালিয়ে আসছে।

এ অপপ্রচার বন্ধ এবং অপপ্রচারকারীদেরকে হীন তৎপরতা থেকে বিরতী থাকার জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে বিনয়ে সাথে অনুরোধ জানানো হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয় আমরা বিষয়টি জেনে অত্যন্ত ব্যথিত ও লজ্জিত হচ্ছি। এমন অনাকাংক্ষিত অবাঞ্চিত কল্প কাহিনী ও আপত্তিকর বক্তব্য ও মন্তব্য বিষয়ে আমাদের অবস্থান পরিস্কার করার জন্য আপনাদের সম্মূখে উপস্থিত হয়েছি।

পরিবারের পক্ষ মানবতার ফেরিওয়ালাখ্যাত বাংলাদেশের শ্রেষ্ট উপজেলা চেয়ারম্যান মিরাজুল ইসলাম বলেন-আমরা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আর্দশে আমাদের সবটুকু শক্তি বিনিয়োগ করে আধুনিক ও মডেল পিরোজপুর জেলা গঠনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশ মোতাবেক নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আমি এবং আমাদের পরিবারের অধিকাংশই জনপ্রতিনিধি, সুতরাং জনগনের আশা আকাংক্ষা পূরণে আমরা বদ্ধপরিকর। আমাদের পিতা ছিলেন একজন স্বনামধন্য সমাজসেবক, জনপ্রতিনিধি ও মানবিক ব্যক্তিত্ব। আমরা ৪ ভাই-এর মধ্যে আমাদের ভাই ভাই  মোঃ মহিউদ্দিন মহারাজ, পিরোজপুর জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ পিরোজপুর জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক, আমি মোঃ মিরাজুল ইসলাম, ভান্ডারিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ,ভান্ডারিয়া উপজেলার সাধারণ সম্পাদক, আমাদের তৃতীয় ভাই মোঃ সামসু উদ্দিন, ৩নং তেলিখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আওয়মী লীগ, ভান্ডারিয়া উপজেলার কার্যনির্বাহী সদস্য ও সহ-সভাপতি, তেলিখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং আমাদের ছোট ভাই মোঃ সালাহ্ উদ্দিন একজন সুপ্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়িক ও সমাজসেবক। আমাদের পরিবার ও আমরা সকলে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, আমরা স্বাধীনতার স্বপক্ষে রাজনীতি, সমাজসেবা ও বৈধভাবে সরকারের কোষাগারে আয়কর প্রদান করে ব্যবসা বানিজ্য ও সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছি। আমাদের বক্তব্যের স্বপক্ষে প্রমানাদি উপস্থাপন করলাম, আপনারা সাংবাদিক জাতির বিবেক আপনারা মূল্যায়ন করুন।

 

আমাদের সর্বজন পিতা সাবেক ৩নং তেলীখালি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মরহুম আলহাজ্ব মোঃ শাহাদাৎ হোসেন এবং আমাদের পরিবারের ভালো ও উন্নয়নমূলকাজে ঈষ্ণানিত হয়ে কতিপয় অসাধু, চতুর, ভন্ড, প্রতারক জোগসাজসে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, অসত্য, মিথ্যা বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিভিন্ন ধরণের মিথা কাহিনী সৃজনের মাধ্যমে পরস্পর যোগসাজসে মানসম্মান ও ইজ্জতের হানিকর বক্তব্য, মন্তব্য বিভিন্ন মাধ্যমে ফেসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে আসছে।  বিশেষ করে স্বাধীনতার স্বপক্ষের সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে কখনো নাম ঠিকানা উল্লেখ অথবা কখনো নাম, ঠিকানা উল্লেখ না করে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অপপ্রচার অব্যহত রেখেছে। আমরা উল্লেখিত ব্যক্তিদেরকে তাদের হীনকাজ থেকে বিরত থাকার অত্র সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে  বিনয়ের সাথে অনুরোধ করছি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বত্তব্য পেশ করেন পরিবারে তৃতীয় সন্তান মোঃ সামসু উদ্দিন।

Print Friendly and PDF
ব্রেকিং নিউজঃ