ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্বরূপকাঠীতে স্বামী-সন্তান-নাতি রেখে মেম্বারের বাড়িতে গৃহবধু

প্রকাশ: ১০ মে, ২০২২ ৮:৫৭ : পূর্বাহ্ণ

পিরোজপুরের নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠী) উপজেলার সারেংকাঠি ইউনিয়নে সাহিদা আক্তার (৪৫) নামে এক গৃহবধু স্বামী, তিন সন্তান ও নাতি ফেলে রেখে বিয়ের দাবিতে স্থানীয় ইউপি মেম্বারের বাড়িতে গিয়ে উঠেছেন।

রোববার রাত থেকে তিনি বিয়ের দাবিতে ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার মো. আল-আমীনের বাড়িতে অবস্থান করছেন। ঘরে উঠার পর থেকে মেম্বার আল-আমীন মোবাইল ফোন বন্ধ রেখে এলাকায় গা ঢাকা দিয়েছেন। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছ।

এলাকার সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ছায়েম জানান, গত বৃহস্পতিবার মেম্বার আল-আমীন ও একই এলাকার বাবুল মাঝির স্ত্রী সাহিদা এলাকাবাসীর কাছে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়ে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে, সাহিদা কোন উপায় না পেয়ে বিয়ের দাবিতে তিন দিন ধরে মেম্বার আল-আমীনের ঘরে অবস্থান নিচ্ছেন।

ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক মীর বলেন, ওই মেম্বারের সাথে বাবুল মাঝির স্ত্রীর চার বছর ধরে অবৈধ সম্পর্ক চলছে। এর আগেও মেম্বার আল-আমীন কয়েকবার ধরা খেয়েছিল। মেম্বার আল-আমীনের বয়স ৪২ ছাড়ালেও এখনও সে বিয়ে করেনি। রবিবার রাতে ওই মহিলা বিয়ের দাবিতে আল-আমীনের ঘরে উঠেছে।

আল-আমীনের বড় ভাই মো. মোস্তফা বলেন, আমার ভাইয়ের সাথে সাহিদার প্রেম আছে। তবে গত বৃহস্পতিবার তারা একটু নির্জনে বসে কথা বলছিল। এসময়ে এলাকার কিছু লোক তাদের নিয়ে বাড়াবাড়ি করছে।

ইউনিয়নের সংরক্ষিত ইউপি সদস্য সুচিত্রা রানি বিশ্বাস বলেন, ওই মহিলার তিনটি ছেলে ও স্বামী আছে। তার দুই ছেলে বিবাহিত। এমনকি তার ছেলের ঘরে সন্তান রয়েছে। শুনেছি মেম্বার আল-আমীন এবং ওই মহিলা এর মধ্যে গোপন সম্পর্ক রয়েছে। এজন্য বিয়ের দাবি করে রবিবার রাতে সাহিদা আল-আমীনের ঘরে উঠেছে।

তিনি আরো জানান, ওই মহিলা এখন বলছে আল-আমীন তাকে বিয়ে না করলে তার ঘরেই সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করবে।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমি জেনেছি। বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে না বসে এ বিষয়ে কিছুই বলতে পারবো না।

Print Friendly and PDF
ব্রেকিং নিউজঃ