ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করছে রাশিয়া

প্রকাশ: ২৭ এপ্রিল, ২০২২ ৫:৩৫ : পূর্বাহ্ণ

পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় গ্যাস রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। দেশটির জ্বালানী কোম্পানি গ্যাজপ্রম জানিয়েছে, বুধবার থেকে পূর্ব ইউরোপীয় এই দেশ দুটিতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হবে। পোল্যান্ডের রাষ্ট্রীয় গ্যাস কোম্পানি পিজিএনআইজি জানিয়েছে, বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছে মস্কো। বুলগেরিয়াকেও একই নোটিস দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির জ্বালানী মন্ত্রণালয়। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, রাশিয়ার গ্যাস আমদানি করতে হলে রুবলে দাম পরিশোধ করতে হবে এমন নিয়ম চালু করেছে দেশটি। নইলে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তবে বুলগেরিয়া ও পোল্যান্ড রাশিয়ার এমন দাবি মানতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। পোল্যান্ড তার চাহিদার বেশিরভাগই গ্যাজপ্রম থেকে আমদানি করে।

এ বছরের প্রথম চার মাসে দেশটির আমদানির ৫৩ শতাংশই এসেছে এই কোম্পানি থেকে। তবে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয়াকে চুক্তি ভঙ্গ বলে আখ্যায়িত করেছে পোল্যান্ড। গ্যাসের সরবরাহ অব্যাহত রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও নাগরিকদের আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

 

অপরদিকে বুলগেরিয়ার প্রয়োজনীয় গ্যাসের ৯০ শতাংশই আসে রাশিয়া থেকে। দেশটি জানিয়েছে, এরইমধ্যে বিকল্প উৎস থেকে গ্যাস আমদানির চেষ্টা করছে তারা। বুলগেরিয়ার জ্বালানী মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গ্যাজপ্রমের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী যা যা করা দরকার তা বুলগেরিয়া করেছে, সকল অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে। রাশিয়া এখন যে পদ্ধতির প্রস্তাব দিয়েছে তা এই চুক্তির লঙ্ঘন।

এমন পরিস্থিতির জন্য পোল্যান্ড প্রস্তুত ছিল বলেও জানিয়েছে সরকারের একাধিক কর্মকর্তা। পোল্যান্ডের জলবায়ু মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, দেশে জ্বালানীর সরবরাহ নিশ্চিত আছে। এখনই রিজার্ভ থেকে গ্যাস সরবরাহ করা কিংবা নাগরিকদের গ্যাস ব্যবহার নিয়ন্ত্রণের কোনো প্রয়োজন নেই। পোল্যান্ডের ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারসিন প্রজিডাচ জানিয়েছেন, তার দেশ আগে থেকেই রাশিয়ার এমন পদক্ষেপের কথা বিবেচনা করে প্রস্তুতি নিয়েছে। আমি পুরোপুরি নিশ্চিত আমরা এই পরিস্থিতি সামলে নিতে পারবো। মস্কোর এই আচরণ প্রমাণ করে যে, ব্যবসা করার জন্য তারা কোনো ভরসাযোগ্য পার্টনার নয়। তিনি জার্মানিসহ অন্য ইউরোপীয় দেশগুলোকে রাশিয়া থেকে গ্যাস আমদানি বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন।

Print Friendly and PDF
ব্রেকিং নিউজঃ