ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘সরকারে থাকাকালীন আমি বিপজ্জনক ছিলাম না, কিন্তু এখন হব’

প্রকাশ: ১৪ এপ্রিল, ২০২২ ৭:১৯ : পূর্বাহ্ণ

অনাস্থা ভোট নিয়ে মধ্যরাতে আদালত বসানোর সমালোচনা করেছেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান। পার্লামেন্ট থেকে পদত্যাগের পর দেশজুড়ে ধারাবাহিক জনসভার কর্মসূচি শুরু করেছেন পাকিস্তানের সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এরই অংশ হিসেবে গতকাল বুধবার দেশটির পেশোয়ার শহরে বিশাল একটি জনসমাবেশ আয়োজন করা হয়। ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইর প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে।

জনসমাবেশে ইমরান খান বলেন, কী অপরাধ করেছি আমি যে আপনারা রাত ১২টায় আদালত বসালেন, আপনারা রাতের অন্ধকারে আদালত বসালেন। অথচ আমি কখনো কোনো প্রতিষ্ঠান বা আদালতের বিরুদ্ধে মানুষকে উস্কে দিইনি।

ইমরান খান ক্ষমতা হারানোর পর থেকেই গত রোববার থেকে র‍্যালি শুরু করে পিটিআই। এ সব র‍্যালির কথা উল্লেখ করে ইমরান বলেন,‘ যতবারই একজন প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়েছে, মানুষ তা উদ্‌যাপন করে। কিন্তু এখন জনগণ আন্দোলন করছে।’

বিদেশি ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বিরোধী দলগুলোর সহায়তায় পিটিআই সরকারকে উৎখাত করা হয়েছে জানিয়ে ইমরান খান খান বলেন,‘ আমি যখন সরকারের অংশ ছিলাম তখন আমি বিপজ্জনক ছিলাম না, কিন্তু এখন আরও বিপজ্জনক হব। আমরা আমদানি করা সরকারকে মেনে নেব না।’

ইমরান খানই পাকিস্তানের প্রথম প্রধানমন্ত্রী যিনি অনাস্থা ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতা হারালেন। পাকিস্তানের এখনো কোনো প্রধানমন্ত্রী পূর্ণ মেয়াদে ক্ষমতায় থাকতে পারেননি। ইমরান খানের অভিযোগ, যুক্তরাষ্ট্র ষড়যন্ত্র করে তাঁকে ক্ষমতা থেকে সরিয়েছে। তবে এটি প্রমাণ হলে পদত্যাগ করবেন বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ।

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে শাহবাজ শরিফ বলেন, ‘যদি আমাদের বিরুদ্ধে একটি অণু পরিমাণ প্রমাণ সরবরাহ করা হয়, আমি অবিলম্বে পদত্যাগ করব।’

Print Friendly and PDF
ব্রেকিং নিউজঃ