ঢাকা, রবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মঠবাড়িয়া উপজেলাকে দ্বিখন্ডিত করার গুজবে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশ: ১০ এপ্রিল, ২০২২ ৮:৩১ : পূর্বাহ্ণ

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলা আওয়ামীলীগ অফিসে আওয়ামীলীগের উদ্দ্যোগে মঠবাড়িয়াবাসীকে বিভ্রান্ত করতে কতিপয় রাজনৈতিক ব্যক্তি কর্তৃক মঠবাড়িয়া উপজেলাকে দ্বিখন্ডিত করার গুজব ছড়িয়েছে।

রাজনৈতক স্বার্থ হাসিলের অপচেষ্টার বিরুদ্ধে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর গণমাধ্যমকর্মীদের সামনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে বলেন, ৩১ মার্চ উপজেলাকে দ্বিখন্ডিত করার গুজব ছড়িয়ে সস্তা জনপ্রিয়তা অর্জন করতে সাধারণ মানুষের মাঝে একটি গুজব ছড়িয়েছেন।

তারা যুগে যুগে পরাজিত শক্তি হিসেবে মঠবাড়িয়ার মানুষের কাছে চি‎হ্নিত হয়ে আছেন। তারা প্রায়ত জাতীয় নেতা মহিউদ্দিন আহম্মেদ, মাহমুদা সওগাত ও ডাঃ আনোয়ার হোসেনকে নীল নকশার মাধ্যমে পরাজিত করে ছিলেন। তারা গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মাননীয় নেত্রীর সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে আশরাফুর রহমানকে আপেল মার্কার প্রতীকে নির্বাচনে প্রতিদ্ধ›দ্বী হিসেবে দাঁড় করিয়ে ছিলেন। তার ভাই রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ জামাত বি এন পির ভোটে বিদ্রোহী উপজেলা চেয়ারম্যান।

গত ইউপি নির্বাচনে তাদের মনোনিত অধিকাংশ ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্য পদের প্রার্থীরা পরাজিত হওয়ায় জনগনের মাঝে মঠবাড়িয়া উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন তেলিখালীর সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে জনগনের মাঝে সস্তা জনপ্রিয়তা অর্জনে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। অথচ জনগন তাদের মিথ্যা প্রপাগান্ডা বুঝতে পেরে তাদের ওই দিনের মিছিল মিটিং ও স্মারক লিপি প্রত্যাক্ষাণ করেছেন।

এসব ষড়যন্ত্রের পিছনে জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সফল চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন মহারাজ তিনি পিরোজপুর ৩ আসনের মনোনয় প্রত্যাশী এবং তিনি জনগনের মাঝে ইতোমধ্যেই ব্যাপক আস্থা অর্জন করে ফেলেছেন। যে কারণে তার বিজয় সু নিশ্চিত ভেবে তার বিরুদ্ধে এহেন মিথ্যা ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে।

নতুন উপজেলা হতে হলে আড়াই লাখ জন সংখ্যার প্রয়োজন। তাছাড়া রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ফোরামের সিদ্ধান্ত অপরিহার্য ও স্থানীয় এমপি ও উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মতামত প্রয়োজন। যারা মিছিল মিটিং ও স্মারক লিপি দিয়েছেন তাদের কাছে এধরনের কোন যুক্তিযুক্ত নথি নেই ও কাউকে দেখাতে পারননি।

শুধু মাত্র হাওয়ায় গুজব ছড়িয়ে জনগন থেকে মহিউদ্দিন মহারাজকে জন বিচ্ছিন্ন করার পাঁয়তারা মাত্র। যে সম্স্ত নেতাদের ছত্র ছায়ায় জামাত বিএনপি মিছিল দিয়ে বরং খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে রাজপথ প্রকম্পিত করেছিল তাদের সে সিদ্ধান্তকে চরম ভাবে ধিক্কার জানাই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও সাবেক পৌর প্রশাসক আলহাজ্ব এ কে এম সেলিম মিঞা, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলতাফ হোসেন আফজাল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আরিফ উল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক লোকমান হোসেন খান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ফজলুল হক মনি, সাবেক যুবলীগের সভাপতি শাকিল আহম্মেদ নওরোজ, ইউপি চেয়াম্যান শাহজান হাওলাদার, হারুন অর রশিদ তালুকদার, ফজলুল হক খান রাহাত, রফিকুল ইসলাম রিপন, রিয়াজুল আলম ঝনো, নাসির হোসেন হাওলাদার, আবু হানিফ খান প্রমূখ।

Print Friendly and PDF
ব্রেকিং নিউজঃ